টুনা সাব, ফুলুরি এবং ফ্রুট পাঞ্চ তৈরির রেসিপি

0
765

কয়েক দিন হলো বেশ গরম পড়েছে। গরমের সাথে পাল্লা দিয়ে মানুষের রোগ-বালাইয়ের পরিমাণও যেন বেড়ে চলছে। এ অবস্থায় যতোটা পারা যায় বাইরের খাবার এড়িয়ে চলাই স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। তবে মুখ তো আর বন্ধ করে রাখতে পারি না।

বন্ধুদের আড্ডায় কিংবা বাড়িতে বিকেলে চায়ের সঙ্গে কিছু না কিছু খেতেই হয়। বাইরের খাবারগুলো এড়িয়ে যথাসম্ভব চেষ্টা করেছি বাড়িতে কীভাবে সুস্বাদু ও মজাদার কিছু এপেটাইজার বা স্ন্যাকস জাতীয় খাবার তৈরি করা যায়৷ বাইরের পরিবেশে গরম এবং অস্বাস্থ্যকর খাবারের ভীড়ে কোনটা খেলে স্বাস্থ্যের জন্য ভালো হবে তা যেন বোঝা দায়।

তাই বাড়িতেই পছন্দের খাবারগুলো তৈরি করার চেষ্টা করবেন৷ এতে করে বাড়ির ছোট বাচ্চাদের স্বাস্থ্যও ঠিক থাকবে এবং বাইরের খাবারের চাহিদাও কমে আসবে। আজ আপনাদের জন্য বাড়িতে খুবই কম সময়ে, অল্প উপকরণ দিয়ে সহজে খাবার তৈরির করার তিনটি রেসিপি রইলো।

টুনা সাব

Source: foodrecipes.au

ফাস্টফুড জগতে বার্গার পিজ্জার পাশাপাশি সাব স্যান্ডউইচও সমান জনপ্রিয়৷ যাদের বার্গারের নরম তুলতুলে বনরুটির চাইতে একটু শক্ত ধাঁচের বনরুটি পছন্দ তাদের কাছে যেন সাব স্যান্ডউইচ বা সংক্ষেপে সাব একটি স্বর্গীয় খাবার।

বিশাল সাইজের বনরুটির মধ্যে পছন্দমতো চিকেন, বিফ, মেয়োনিজ, সালাদ এবং চিজ- এটুকুন ভাবতেই আমার জিভে জল চলে এসেছে। তবে এবারের আয়োজনে আমি বাড়িতে যে সাবটি তৈরি করেছিলাম তাতে চিকেন কিংবা বিফের পরিবর্তে আমি ব্যবহার করেছিলাম টুনা মাছ।

টুনা মাছ আমাদের শরীরের জন্য খুবই উপকারী একটি খাবার৷ চলুন, টুনা সাব তৈরির করার পুরো রেসিপিটি আমরা জেনে নিই।

প্রয়োজনীয় উপকরণ

  • সাব বানরুটি ২টি
  • টুনা মাছ ২ কৌটা
  • মেয়োনিজ আধা কাপ
  • মাখন ১০০ গ্রাম
  • লবণ আধা চা চামচ
  • সাদা গোলমরিচ আধা চা চামচ
  • চিনি আধা চা চামচ
  • লেবুর রস আধা টেবিল চামচ
  • পেঁয়াজ গোল করে কাটা ৪ টুকরা
  • ক্যাপসিকাম গোল করে কাটা ৪ টুকরা
  • লেটুসকুচি আধা কাপ

প্রস্তুত প্রণালি

প্রথমে কৌটা থেকে টুনা মাছ বের করে চিপে নিন। এবার আধা কাপ মেয়োনিজ ও ৫০ গ্রাম মাখন একসঙ্গে ভালো করে ইলেকট্রিক বিটারের সাহায্যে বিট করে নিন। মসৃণ একটা মিশ্রণ তৈরি হয়ে এলে টুনা মাছগুলো এর সাথে মিশিয়ে ভালো করে হাত দিয়ে মেখে নিন।

Source: Indiansvegerecipe

সাব বানরুটি মাঝখান থেকে আড়াআড়ি করে কেটে নিন। চুলায় একটি তাওয়া গরম করে এর মধ্যে আধা চা চামচ পরিমাণ তেল দিয়ে বনরুটিগুলো হালকা ভেজে নিন বা টোস্ট করে নিন। এবার এই সাব বানগুলোতে মাখন লাগিয়ে নিন।

মাখনের ওপর লেটুসপাতার কুচি বিছিয়ে তার ওপর টুনা মাছ ও মেয়োনিজের মিশ্রণটি পুরু করে বা পছন্দমতো পরিমাণে দিয়ে দিন। গোল করে কাটা পেঁয়াজ ও ক্যাপসিকাম এর ওপর বিছিয়ে দিন।

Source: vegansrecipe

সাব বানের ওপরের বনটি দিয়ে ঢেকে মাঝখান থেকে অর্ধেক করে কেটে পরিবেশন পাত্রে সাজিয়ে টমেটো সস ও মেয়োনিজের সাথে পরিবেশন করুন মজাদার টুনা সাব।

ফুলুরি

Source: YouTube

প্রয়োজনীয় উপকরণ

  • বেসন ১ কাপ
  • বেকিং পাউডার দেড় চা চামচ
  • লবণ আধা চা চামচ
  • ভাজা জিরার গুঁড়া আধা চা চামচ
  • পুদিনাপাতা কুচি ২ টেবিল চামচ
  • তেল ভাজার জন্য
  • হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ
  • মরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ
  • আদা বাটা সিকি চা চামচ
  • পেঁয়াজ কুচি ২টি
  • কাঁচা মরিচ কুচি ১ টেবিল চামচ

প্রস্তুত প্রণালি

একটি বড় বোলে পেঁয়াজ, কাঁচা মরিচ কুচি, লবণ, ধনেপাতা কুচি একসাথে নিয়ে হাত দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে মেখে নিন। অন্য একটি শুকনা পাত্রে বেসনের সঙ্গে বেকিং পাউডার মিশিয়ে নিন। কাঁচা মরিচ, পেঁয়াজ ও ধনেপাতার মিশ্রণে বেসনগুলো দিয়ে দিন। এর সাথে একে একে হলুদ, মরিচ ও ভাজা জিরার গুঁড়া এবং আধা কাপ পানি ভালো করে মিশিয়ে একটি মসৃণ মিশ্রণ তৈরি করুন। মিশ্রণটি খুব বেশি পাতলা বা খুব ঘন যেন না হয়।

Source: youtube

কড়াইয়ে তেল গরম করে এক টেবিল চামচ বেসনের গোলা ছাড়ুন। সঙ্গে সঙ্গে ফুলে ভেসে ওপরে উঠলে বুঝে নিতে হবে তেলের তাপ ঠিক আছে। চুলার আঁচ বাড়িয়ে একসঙ্গে পাঁচ-ছয়টি ফুলুরি মুচমুচে করে ভেজে তেল ছেঁকে উঠিয়ে টিস্যু পেপারের ওপরে রাখুন।

পালংশাক, পুঁইশাক বা অন্য কোনো শাকপাতা কুচি করেও বেসনের সঙ্গে মিশিয়ে ফুলুরি তৈরি করা যায়। তেঁতুল ও পুদিনাপাতার চাটনির সঙ্গে সাজিয়ে গরম গরম ফুলুরি পরিবেশন করুন।

ফ্রুট পাঞ্চ

কয়েকদিন ধরে বেশ গরম পড়েছে। গরমে জীবন একদম যায় যায় অবস্থা। তাছাড়া এখন মৌসুমী ফলের সিজন। অনেক ধরনের ফল বাজারে পাওয়া যায়। কিন্তু অনেক বাচ্চারা ফল খেতে পছন্দ করে না।

Source: recipesfrompantry

তাদের জন্য ফ্রুট পাঞ্চ একটি আদর্শ খাবার। ফলের পুষ্টিগুণের সাথে এই গরমে রিফ্রেশমেন্ট দেয়ার জন্য ফ্রুট পাঞ্চের জুড়ি নেই। তো পাঠক, চলুন জেনে নিই ফ্রুট পাঞ্চ তৈরির প্রস্তুত প্রণালিটি।

প্রয়োজনীয় উপকরণ

  • সবুজ আঙুর অর্ধেক করে কেটে নিতে হবে আধা কাপ
  • সবুজ আপেল কিউব করে কাটা এক কাপ
  • কালো আঙুর অথবা লাল আঙুর অর্ধেক করে কেটে নিতে হবে আধা কাপ
  • পাকা আম কিউব করে কাটা ১ কাপ
  • তরমুজ কিউব করে কাটা পরিমাণমতো
  • কমলা খোসা ছাড়িয়ে কোষগুলো খুলে নিতে হবে অাঁশের ভেতর থেকে
  • ট্যাং পানিতে গুলে নেওয়া আধা লিটার
  • চায়ের লিকার এক কাপ
  • মাল্টা বা কমলার জুস আধা লিটার
  • স্বচ্ছ সোডাযুক্ত কোমল পানীয় এক লিটার
  • চিনি সিকি কাপ
  • পুদিনাপাতা সাজানোর জন্য

প্রস্তুত প্রণালি

একটি বাটিতে কিউব করে কাটা ফলগুলো নিয়ে এতে লেবুর রস মেখে রেখে রাখুন। এতে ফলগুলো লালচে হয়ে যাবে না। একটি পাত্রে চায়ের লিকার, ট্যাং, চিনি ও লবণ মিশিয়ে ফলের মধ্যে ঢেলে দিন। ফলের সঙ্গে ট্যাং লিকারের মিশ্রণ আলতোভাবে মিশিয়ে নাড়ুন।

Source: theforkbite

এবারে ১০ বা ১৫ মিনিট পরপর মাল্টা বা কমলার জুস ফলের পাত্রে অল্প অল্প করে ঢেলে মিশিয়ে নিন।পরিবেশনের আগে পরিবেশন গ্লাস বা কাপে ঢেলে ঠাণ্ডা কোমল পানীয় ঢেলে পুদিনাপাতা দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন। এর প্রতিটি চুমুক আপনাকে একদম ভেতর থেকে সতেজ করে তুলবে।

Feature Image: recipesfromapantry

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here