পাঞ্জাবি ডাল তাড়কা ও কারি পাকোড়া রেসিপি

0
692

ভারতের পাঞ্জাব বিভিন্ন কারণে বিখ্যাত। বিশেষ করে শিখদের আবাস ও কৃষির জন্য অধিক পরিচিত। তবে সীমান্তবর্তী এই রাজ্য তার খাবারের জন্যও বেশ বিখ্যাত। পাঞ্জাবে মুরগি থেকে তৈরি বিভিন্ন খাবার অধিক জনপ্রিয়। এর বাইরে ডাল তাড়কা ও কারি পাকোড়া অনেক বেশি বিখ্যাত। আজ পাঞ্জাবের এই বিশেষ দুইটি খাবারের রেসিপি নিয়েই আমাদের আয়োজন।

পাঞ্জাবি ডাল তাড়কা

ডাল তাড়কা ছাড়া পাঞ্জাবের সকল খাবারই অসম্পূর্ণ থেকে যায়। পাঞ্জাবি খাবার সমূহের মধ্যে এটি বহুল জনপ্রিয়। বাসাবাড়ি থেকে শুরু করে নামীদামী রেস্টুরেন্ট, সবখানেই এই খাবারটি পরিবেশন করা হয়। তবে ডাল তাড়কা মূল খাবার নয়। মূলত বিভিন্ন খাবারের সাথে সাইড ডিশ হিসেবে এটি পরিবেশন করা হয়। ভাত, রুটি বা নানরুটি সবকিছুর সাথেই ডাল তাড়কা খাওয়া যায়। পাঞ্জাবি খাবার হলেও ভারতের অন্যান্য অঞ্চলেও এই খাবারটি খুবই জনপ্রিয়।

মূল উপকরণ

  • ১/২ কাপ ছোলার ডাল
  • ১/২ কাপ খেসারির ডাল
  • ১/২ চা চামচ হলুদের গুঁড়া
  • ১/২ চা চামচ লবণ
  • ১ কাপ পানি

গ্রেভির উপকরণ

  • ২ টেবিল চামচ তেল
  • ১ চা চামচ জিরা
  • ১ চা চামচ আদা ও রসুনের পেস্ট
  • ১টি পেঁয়াজ, কুচি
  • ১টি টমেটো, কুচি
  • ১/৪ চা চামচ লবণ
  • ১ চা চামচ ধনিয়ার গুঁড়া
  • ১/২ চা চামচ গরম মসলা
  • ১টি কাঁচামরিচ, কুচি
  • ১/২ কাপ ডাল পানি (১ কাপ ডাল ও ২ পানি, এই অনুপাতে প্রেসার কুকারে ১৫টি রান্না করে ডাল পানি তৈরি হয়)
  • ১/২ চা চামচ মেথি

তাড়কার উপাদান

  • ২ টেবিল চামচ তেল
  • ১/২ চা চামচ জিরা
  • ১ চা চামচ রসুন, কুচি
  • ২টি শুকনা মরিচ
  • ১/২ চা চামচ আদা
  • ১/২ চা চামচ মরিচের গুঁড়া
  • ২ টেবিল চামচ ধনেপাতা

প্রস্তুত প্রণালী

প্রথমে দুইটি আলাদা বাটিতে পানি দিয়ে তার মধ্যে ছোলার ডাল ও খেসারি ডাল ২ ঘন্টা ভিজিয়ে রাখতে হবে। দুই ঘন্টা পর উভয় প্রকারের ডাল একসাথে ভালো ভাবে ধুয়ে নিয়ে প্রেসার কুকারে এক কাপ পানি ও হলুদের গুঁড়া দিয়ে ৭ থেকে ৮ মিনিট বা তিন থেকে চারটি শিস দেওয়া পর্যন্ত রান্না করতে হবে।

ডাল তাড়কা; Source: NDTV Food

এরপর গ্রেভি তৈরি করার জন্য একটি কড়াইতে তেল গরম করে তার মধ্যে জিরা দিতে হবে এবং যখন জিরা ফুটতে শুরু করবে, তখন আদা ও রসুনের পেস্ট দিয়ে ভালোভাবে মেশাতে হবে। তারপর পেঁয়াজ দিয়ে ভাজতে হবে। পেঁয়াজের রং সোনালি হয়ে আসলে এর মধ্যে টমেটো দিয়ে কিছুক্ষণ রান্না করতে হবে। এরপর লবণ, ধনিয়া গুড়া, গরম মসলা ও কাঁচা মরিচ দিয়ে ১ মিনিট রান্না করতে হবে। তারপর এই মসলার মধ্যে ডাল পানি দিয়ে কিছুক্ষণ জ্বাল করে ফোটাতে হবে। এরপর আগে থেকে সেদ্ধ করা ডাল দিয়ে কিছুক্ষণ রান্না করতে হবে।

রুটির সাথে ডাল তাড়কা; Source: Twitter

তাড়কা করার জন্য একটি কড়াইতে তেল গরম করে তারমধ্যে জিরা দিতে হবে এবং যখন জিরা ফুটতে শুরু করবে তখন রসুন, শুকনা মরিচ ও আদা দিয়ে কয়েক সেকেন্ড রান্না করতে হবে। এর সাথে ধনেপাতা ও মরিচের গুড়া দিয়ে ভালোভাবে মেশাতে হবে। এই তাড়কা ডালের উপর দিয়ে ভাত, রুটি বা নানের সাথে পরিবেশন করতে হবে।

পাঞ্জাবি কারি পাকোড়া

মজাদার ক্রিমি গ্রেভির মধ্যে নরম পাকোড়া দিয়ে তৈরি করা হয় পাঞ্জাবি কারি পাকোড়া । পাঞ্জাবের জনপ্রিয় এই খাবারটি বেসন, বিভিন্ন মসলা ও শুকনা দিয়ে তৈরি করা হয়। পাঞ্জাব ছাড়াও ভারতের অন্যান্য অঞ্চলেও সুস্বাদু এই খাবারটি রান্না করা হয়। সাধারণত ভাতের সাথে পরিবেশন করা হলেও এটি রুটি বা পরোটার সাথেও খাওয়া যায়। এটি মূলত দুপুরের খাবার হিসেবে রান্না করা হয়।

কারি তৈরির উপকরণ

  • ৩০০ গ্রাম বেসন
  • ৫০০ গ্রাম দই
  • ১০০ গ্রাম পেঁয়াজ
  • ২০ গ্রাম আদা
  • ৫ গ্রাম মরিচের গুঁড়া
  • লবণ স্বাদমতো
  • ৩ গ্রাম হলুদের গুঁড়া
  • ২ গ্রাম গরম মসলা
  • ২০০ মিলি তেল
  • ১ গ্লাস

তাড়কা তৈরির উপকরণ

  • ২ গ্রাম শুকনা মরিচ
  • ১০ গ্রাম ঘি
  • ২ গ্রাম জিরা
  • ২ গ্রাম মৌরি
  • শুকনা মেথি পাতা
  • ১ গ্রাম কাঁচামরিচ

পাকোড়া তৈরির উপকরণ

  • ২৫০ গ্রাম বেসন
  • ১০০ গ্রাম পেঁয়াজ, স্লাইস করে কাটতে হবে
  • ৬টি কাঁচামরিচ, স্লাইস
  • লবণ, স্বাদমতো
  • ৫ গ্রাম মরিচের গুঁড়া
  • ২০ গ্রাম টাটকা ধনেপাতা
  • ৩ গ্রাম জিরা
  • ১০ গ্রাম ধনিয়া, আস্ত
  • পানি, পরিমাপ মতো

প্রস্তুত প্রণালী

প্রথমে কারি তৈরি করার জন্য একটি ব্লেন্ডারে দই ও সামান্য পানি দিয়ে ভালোভাবে ব্লেন্ড করে মিশ্রণটি একটি বাটিতে ঢেলে আলাদা করে রাখতে হবে। এরপর ব্লেন্ডারে বেসন ও সামান্য পানি দিয়ে ব্লেন্ড করে আরো একটি বাটিতে আলাদা করে রাখতে হবে। তারপর একটি কড়াইতে তেল গরম করে তার মধ্যে পেঁয়াজ দিয়ে ভালোভাবে ভেজে নরম করতে হবে। এর সাথে আদা ও রসুনের পেস্ট দিয়ে সোনালী করে ভাজতে হবে। তারপর টমেটো, লবণ, হলুদ ও মরিচের গুঁড়া দিয়ে ভালোভাবে মেশাতে হবে। এরপর দই এবং বেসনের মিশ্রণ টি দিয়ে অল্প আঁচে ২০ থেকে ২৫ মিনিট জ্বাল করে ঘন করতে হবে।

কারি পাকোড়া; Source: Twitter

তারপর তাড়কা তৈরি করার জন্য একটি কড়াইতে ঘি গরম করে তার মধ্যে মৌরি, মেথি পাতা, কাঁচা মরিচ ও শুকনো মরিচ দিয়ে ভালোভাবে ভেজে আগে তৈরি করা কারিই মধ্যে মেশাতে হবে। এরপর পাকোড়া তৈরি করার জন্য একটি বাটিতে বেসন, সব ধরনের মসলা, পেঁয়াজ, কাঁচামরিচ ও পানি নিয়ে হাতের সাহায্যে মাঝারি ধরনের বেটার তৈরি করতে হবে। তারপর কড়াইতে তেল গরম করে পাকোড়া ভেজে কারিইর মধ্যে ছেড়ে দিতে হবে। সবশেষে রুটি, নান বা পরোটার সাথে গরম গরম কারি পাকোড়া পরিবেশন করতে হবে।

Featured Image: Twitter

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here