পুরান ঢাকার যে খাবারগুলো কখনোই মিস করা উচিত নয়

0
3013

পুরান ঢাকা ও পুরান ঢাকার খাবার সম্পর্কে কার না ধারণা আছে! নবাবি ভোজের দিক থেকে পুরান ঢাকার মানুষ বেশ প্রশংসা কুড়োয়। কাচ্চি, বিরিয়ানী, ভুনা খিচুড়ি, মাংস, মিষ্টি, ফিরনী, বোরহানি ইত্যাদি খাবারগুলোতে পুরান ঢাকার মত স্বাদ অন্য কম জায়গাতেই পাওয়া যাবে। পুরান ঢাকার মানুষ খাওয়াদাওয়ার দিক থেকে অত্যন্ত শৌখিন। বিশেষ করে মাংস ও মসলা জাতিয় খাবার তারা অধিক পছন্দ করেন। তাদের অধিকাংশ খাবারেই বিভিন্ন রকম মসলার উপস্থিতি পাবেন। পাবেন ঝাল স্বাদ। গরুর মাংস কিংবা মুরগীর মাংস উভয় দিকেই রয়েছে তাদের বিভিন্ন রকম রন্ধনশৈলী।

খাবারে পুরান ঢাকার জুড়ি নেই৷ ভোজন রসিক পুরান ঢাকার মানুষদের সাথে রোজই দূর দূরান্ত থেকে অন্যান্য ভোজন রসিকরাও ভিড় জমান পুরান ঢাকায়। পুরান ঢাকা ঘুরে দেখতে ও পুরান ঢাকার খাবারের স্বাদ নিতে রোজই আসেন কেউ না কেউ।

চলুন জেনে নেওয়া যাক, পুরান ঢাকার জনপ্রিয় কয়েকটি খাবার সম্পর্কে।

১. বাকরখানি

source: লেখিকা

বাকরখানি মূলত মুঘল আমলের ঐতিহ্যবাহী এক ধরনের রুটি। রুটিটার প্রস্তুত প্রণালী ও ভাজার উপায় অন্যান্য রুটি থেকে একদমই আলাদা। পুরান ঢাকার মানুষেরা সকালের নাস্তায় চায়ে ভিজিয়ে এই খাবারটি খেতে বেশ পছন্দ করেন। শুধু পুরান ঢাকাতেই না, এর জনপ্রিয়তা আরো বিস্তৃত। এই জনপ্রিয়তাতেই দেশের বিভিন্ন জায়গায় এখন তৈরি হয় বাকরখানি। তবে পুরান ঢাকার বাকরখানির বিশেষত্বই আলাদা, যা অন্য জায়গায় পাওয়া যায় না। এখানকার বাখরখানির ভেতরের সুন্দর ঘ্রাণ, পুরো বাখরখানির বিশেষ স্বাদ এসবের কোনোটির দেখাই পাওয়া যায় না অন্য স্থানের বাখরখানিতে।

পুরান ঢাকার জিঞ্জিরার বরিশুর, লালবাগ, নাজিমুদ্দিন রোড, চানখাঁরপুল, কসাইটুলি, নাজিরাবাজার, নবাববাড়ি, নবরায় লেন ও সূত্রাপুরে বাকরখানির বেশ কিছু দোকান ও কারখানা আছে। এছাড়াও ছোট বড় সব গলিতেই পাবেন বাখরখানির দোকানের দেখা।

২. কাবাব

source: blogekattor.com

পুরান ঢাকায় পাবেন নানা রকম কাবাব। গরুর মাংস কিংবা মুরগীর মাংস উভয়েরই কাবাব পাবেন এখানে। আবার কাবাবেও রয়েছে বেশ রকমফের। বটি কাবাব অধিক জনপ্রিয়। আরো জনপ্রিয় কাবাবের মধ্যে রয়েছে সুতা কাবাব। এই দুটি কাবাব পাবেন পুরান ঢাকার প্রায় সব হোটেলেই। তাছাড়া আরো অনেক রকম কাবাবের মধ্যে রয়েছে- গুর্দা কাবাব, কাশ্মিরী কাবাব, টিক্কা কাবাব, চিকেন কাবাব, শিক কাবাব ও চাপ। গরম গরম রুটির সাথে এসব কাবাব বেশ জনপ্রিয়।

কাবাবের জন্য পুরান ঢাকায় বিখ্যাত ‘বিসমিল্লাহ কাবাব ঘর’। এখানকার কাবাবের প্রশংসা সারাদেশব্যাপী। তাছাড়া লালবাগের ভাটের মসজিদের কাবাব বন বেশ বিখ্যাত।

৩. বাসমতি চালের কাচ্চি

source: beshto.com

কাচ্চি বিরিয়ানি পুরান ঢাকার বেশ জনপ্রিয় একটি খাবার। স্বাদের দিক থেকেও পুরান ঢাকার কাচ্চি বেশ জনপ্রিয় ও প্রশংসিত। বহু বছর ধরে কাচ্চি বিরিয়ানির এই স্বাদ, মান ও ঐতিহ্য টিকিয়ে রেখেছে পুরান ঢাকা। পুরান ঢাকায় রয়েছে বেশ কিছু খ্যাতনামা কাচ্চি বিরিয়ানির হোটেল। পুরান ঢাকার চাঁনখারপুলের গলির মুখে ঢুকলেই দেখা মেলে অসংখ্য হোটেলের। যেখানে প্রায় প্রতিদিনই ভীড় থাকে কাচ্চি বিরিয়ানি প্রেমীদের। এছাড়াও লালবাগ চৌরাস্তার মোড়ে রয়েল হোটেল, চাঁনখারপুলের নিরব হোটেল, নাজিম উদ্দিন রোড ও নাজিরা বাজারের কিছু হোটেল বেশ জনপ্রিয়।

৪. শাহী মোরগ পোলাও

source: jagonews24.com

শাহী মোরগ পোলাও পুরান ঢাকার মানুষের অত্যন্ত পছন্দের একটি খাবার। দুপুর ও রাতের খাবারে এর চাহিদা অনেক বেশি। অতিথি আপ্যায়নেও দেখা যায় শাহী মোরগ পোলাও। একবারের জন্য হলেও শাহী মোরগ পোলাওয়ের অসাধারণ স্বাদ নিতে চাইলে আপনার আসতে হবে পুরান ঢাকায়।

কাচ্চি বিরিয়ানী কিংবা শাহী মোরাগ পোলাও ইত্যাদি খাবারগুলো পুরান ঢাকার মতো স্বাদের অন্য কম জায়গায়ই পাবেন। পুরান ঢাকার চাঁনখারপুল, নাজিরা বাজার, নাজিম উদ্দিন রোড, লালবাগ মোড়, জিঞ্জিরা বাজার এসব জায়গাগুলোতে পেয়ে যাবেন দারুণ কিছু হোটেল যেখানে তৃপ্তি নিয়ে খেতে পারবেন মজাদার স্বাদের শাহী মোরগ পোলাও।

৫. গরুর মাংসের ভুনা খিচুড়ি

source: banglalive.com

ভুনা খিচুড়ি অনেকেরই পছন্দ। আর ভুনা খিচুড়ির সাথে ঝাল ঝাল স্বাদের গরুর মাংসের ভুনা যেন না হলেই নয়। পুরান ঢাকায় পাবেন এমন মজাদার গরুর মাংসের ভুনা খিচুড়ি যার স্বাদ সহজেই ভুলবেন না। পুরান ঢাকায় খাবারে যেসব মসলা ব্যবহৃত হয় তা খাবারের স্বাদ অনেক বেশি বাড়িয়ে তুলে।

ভুনা খিচুড়ি সেসব মসলার মিশ্রণে দারুণ স্বাদের হয়ে ওঠে। নাজিরা বাজার, বকশী বাজার, রায় সাহেব বাজার, চাঁনখারপুর সহ যেসব স্থানে ভালো কাচ্চির, বিরিয়ানী পাবেন সেখানেই পেয়ে যাবেন ভালো স্বাদের গরুর মাংসের ভুনা খিচুড়ি।

৬. মিষ্টি

source: youtube.com

পুরান ঢাকায় আছে ঐতিহ্যবাহী বেশ কিছু মিষ্টির দোকান। সেখানে তৈরি হয় নানা রকম মিষ্টি। সবখানে পরিচিত সাধারণ কিছু মিষ্টির বাইরেও আছে জাফরান মিষ্টি ও শাহী চাপ মিষ্টি। এ মিষ্টি দুইটি অত্যন্ত জনপ্রিয়।

পুরান ঢাকার লালবাগ কেল্লার মোড়ে মদিনা মিষ্টান্ন ভাণ্ডার বেশ জনপ্রিয় জাফরান মিষ্টি ও শাহী চাপ মিষ্টির জন্য। এছাড়াও পুরান ঢাকার আরো বেশ কিছু জায়গায় পাওয়া যায় এই বিশেষ মিষ্টিগুলো। পুরান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী স্থানগুলো ভ্রমণ করতে পারেন বিভিন্ন স্থানে খাবারের স্বাদ নিতে নিতে।

৭. বোরহানি

source: bapse.com

পানীয়ের মধ্যে বোরহানি সেরা পুরান ঢাকায়। এই পানীয়টি প্রায় সবাই পছন্দ করেন। বিশেষ করে এক প্লেট কাচ্চি বা বিরিয়ানীর পর এক গ্লাস বোরহানি যেনো না হলেই নয়! ঘন স্বাদের এই পানীয়টি খেতে বেশ মজাদার।

টকদই, পুদিনা, ধনেপাতা, কাঁচামরিচ, লবঙ্গ, চিনি, সাদা সরিষা, কালো সরিষা, গোল মরিচ ও বিট লবণ একসাথে মিশিয়ে এই বোরহানি তৈরি করা হয়। বোরহানি যে শুধু স্বাদেই মজাদার, তা নয়। এর আছে উপকারিতাও। বিশেষ করে ‘রিচ ফুড’ খাওয়ার পর বোরহানি অনেকটা হজমের ওষুধ হিসেবে কাজ করে।

বোরহানি হজমের জন্য বেশ ভালো একটি পানীয়। পুরান ঢাকার প্রায় প্রত্যেকটি হোটেলেই পাবেন ভালো মানের, ভালো স্বাদের বোরহানি। এছাড়া রয়েল হোটেল সহ বেশ কিছু বিখ্যাত হোটেল তো থাকছেই।

ফিচার ইমেজ- লেখিকা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here